৭১ লক্ষ ভারতীয়দের অ্যাকাউন্ট ব্যান করল হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থা, জেনে নিন বিস্তারিত

Tech Zedia Desk
3 Min Read

হোয়াটসঅ্যাপ প্রতিমাসে লক্ষাদিকেরও বেশি ভারতীয় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের একাউন্টে ব্যান করে চলেছে। হোয়াটসঅ্যাপ সংস্কার তরফে জানানো হয়েছে এই ব্যান করার প্রধান কারণ হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপের পলিসি না মেনে চলা।

হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাপের পেরেন্ট কোম্পানি মেটা সংস্কার তরফে জানানো হয়েছে ১লা এপ্রিল ২০২৪ থেকে ৩০ এপ্রিল ২০২৪ পর্যন্ত প্রায় ৭১ লক্ষ ভারতীয়দের হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্যান করেছে সংস্থাটি। সংস্থার তরফে আরো জানানো হয়েছে যে এই অ্যাকাউন্টগুলি হোয়াটসঅ্যাপের অ্যাপের অপব্যবহার এবং তার নিয়মগুলি অবমাননা করছিল যে জন্য এই অ্যাকাউন্টটি কে ব্যান করা হয়েছে।

মেয়টা সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে এখনো পর্যন্ত তারা মোট  7,182,000 হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট কে ব্যান করেছে তাদের মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম থেকে। তারা এটাও জানিয়েছে বিভিন্ন  বিজ্ঞাপন, একাউন্ট সুরক্ষা, ও প্রোডাক্ট সাপোর্ট এইসব ক্ষেত্রে 10,554 হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের অভিযোগ এসেছে সংস্থার কাছে। যার জন্যই সেইসব হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টগুলিকে ব্যান করেছে মেটা সংস্থাটি।

যেসব কারণে হোয়াটসঅ্যাপ তার ইউজারদের অ্যাকাউন্ট ব্যান করে থাকে সেগুলি হল:

  • ব্যবহারকারীর রিপোর্ট: হোয়াটসঅ্যাপ সেইসব ব্যবহারকারীকে ব্যান করতে পারে যারা অন্য হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের সাথে আপত্তিকর বা অনুপযুক্ত কোন ব্যবহার করে থাকে।
  • পরিষেবার শর্তাবলী লঙ্ঘন: হোয়াটসঅ্যাপ মেসেঞ্জারে যদি কোন ব্যাক্তি স্প্যাম, স্ক্যাম, ভুল তথ্য শেয়ার করে থাকে বা ক্ষতিকারক কোন কিছু পোস্ট বা পাঠিয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপ সেই অ্যাকাউন্টগুলিকে ব্যান করতে পারে।
  • আইনি লঙ্ঘন: আপনি যদি আপনার দেশের স্থানীয় আইন ব্যবস্থা উল্লেখ করেন হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং ব্যবহার করে সেক্ষেত্রেও আপনাকে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যান্ড করতে পারে।

কিভাবে হোয়াটসঅ্যাপ তার ইউজারদের অ্যাকাউন্ট ব্যান করে থাকে ?

হোয়াটসঅ্যাপ সারা বিশ্বের খুবই জনপ্রিয় একটি মেসেজ প্ল্যাটফর্ম। এই প্লাটফর্মে কাজ করে হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থার তৈরি অ্যালগরিথম এর মাধ্যমে। আর এই হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থাটি হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং অ্যাপের অপব্যবহার রুখতে তারাই এই অ্যালগরিদম তৈরি করেছে।

এই অ্যালগরিথমকে তারা এমনভাবেই ডিজাইন করেছে যে সন্দেহজনক কোন নতুন একাউন্ট রেজিস্ট্রেশন হলে তৎক্ষণাৎ হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থাকে তা জানিয়ে দেবে। এছাড়াও অ্যালগরিথমটি হোয়াটসঅ্যাপ ইজজারদের অ্যাপ ব্যবহার ও অ্যাক্টিভিটি সমস্ত কিছুকে প্রতিনিয়ত ট্রাক করে।

যার মাধ্যমে ইউজারদের পাঠানো ব্যক্তিগত মেসেজ, গ্রুপ চ্যাট, বা মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করে পাঠানো অন্য কোন তথ্য এই সমস্ত কিছুই প্রতিনিয়ত স্ক্যান করতে থাকে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যালগরিথমটি । আর এইসব তথ্যের মধ্যে কোন সন্দেহজনক তথ্য তারা পেলেই তা হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থাকে জানিয়ে দেয়। এবং এই তথ্যের বিশেষে হোয়াটসঅ্যাপ সংস্থাটি তৎক্ষণাত সেই অ্যাকাউন্টটিকে হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং অ্যাপ থেকে ব্যান করে দেয়।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Group Join Now
Share This Article