Telegram সংস্থার TON ব্লকচেইন প্ল্যাটফর্মের উপর কু নজর হ্যাকারদের! ফিশিং অ্যাটাকের সম্মুখীন হতে পারে ইউজাররা

Subheccha Das

TON Blockchain Phishing Attack: অন্যতম জনপ্রিয় ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম Telegram 2019 সালে ‘The Open Network’ (TON) নামের একটি ব্লকচেইন প্ল্যাটফর্ম চালু করে। মূলত Telegram ইকোসিস্টেমে ক্রিপ্টোকারেন্সি এবং ব্লকচেইন ফাংশনালিটি ইন্টিগ্রেট বা একীভূত করার লক্ষ্যে Pavel Durov এমনটা করেছিলেন। যাইহোক এখন যখন TON ব্লকচেইনের জন্য সাফল্যের দরজা খুলে গেছে এবং লক্ষ্যাধিক মানুষ প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহার করছেন, তখনই TON ব্লকচেইনের জন্য উচ্চ ঝুঁকি সম্পন্ন ফিশিং আক্রমণের সম্ভাবনা জারি করা হল।

ব্লকচেইন সিকিউরিটি ফার্ম SlowMist -এর সাইবার বিশেষজ্ঞরা দাবি করেছেন যে, সমগ্র TON ইকোসিস্টেম বর্তমানে ফিশিং অ্যাটাক থ্রেটের সম্মুখীন হয়েছে। যা এই ব্লকচেইন প্ল্যাটফর্মের নিকট ভবিষ্যতের পরিকল্পনায় নেতিবাচকভাবে প্রভাব ফেলতে পারে। বিশেষ করে ঘটনাটি এমন সময়েই ঘটলো যখন TON -এর সাথে প্রতি মাসে 2.5 মিলিয়ন মানুষ যুক্ত হচ্ছে।

কী বলছেন TON Blockchain Phishing Attack নিয়ে সাইবার বিশেষজ্ঞরা?

SlowMist সিকিউরিটি ফার্মের প্রতিষ্ঠাতা Yu Xian গত 23শে জুন TON ব্লকচেইন টিমকে তাদের নেটওয়ার্কে ধরা করা সম্ভাব্য ফিশিং অ্যাটাক সম্বন্ধে সতর্ক করেছিলেন। এই ধরনের ফিশিং আক্রমণে, ভিক্টিমরা যাতে তাদের ব্যক্তিগত এবং আর্থিক তথ্য শেয়ার করেন তার জন্য একটি ফিশিং ওয়েবসাইটে রিডিরেক্ট করার চেষ্টা করে প্রতারকরা। এরপর উদ্দেশ্য সফল হলে ভিক্টিমদের তথ্য ব্যবহার করে টাকা চুরির মতো বেআইনি কাজে লিপ্ত হয়।

Yu Xian -এর সাম্প্রতিক X পোস্ট অনুসারে – “TON ইকোসিস্টেমে একাধিক ফিশিং কার্যকলাপ চলছে৷ Telegram ইকোসিস্টেমে নিয়ম-কানুন খুব আলগা থাকায় অনেক ফিশিং লিঙ্ক বা বট ফর্ম বর্তমানে বিভিন্ন মেসেজ গ্রুপ, এয়ারড্রপ ইত্যাদির মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ছে।”

জানিয়ে রাখি, TON ইউজাররা Telegram অ্যাকাউন্টের সাথে তাদের ওয়ালেট লিঙ্ক করার সুবিধা পান। ফলে SlowMist সিকিউরিটি ফার্মের কর্ণধার আশঙ্কা করছেন যে, যদি সিকিউরিটি সিস্টেম বাইপাস করে TON-লিঙ্কড ওয়ালেটগুলির অ্যাক্সেস হাতিয়ে নিতে পারে হ্যাকাররা তবে ভিক্টিমদের ব্যক্তিগত মেসেজও প্রভাবিত / ফাঁস হতে পারে।

TON ব্লকচেইন টিম এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। সাইবার বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, TON ব্লকচেইন প্ল্যাটফর্ম ডেভলপাররা যদি শীঘ্রই কোনো ব্যবস্থা না নেন তবে ইউজারদের ডেটা ঝুঁকিতে পড়তে পারে। এছাড়া আপনি যদি একজন TON ইউজার হন তাহলে সাবধান হোন তা নাহলে আপনিও থ্রেট পেতে পারেন।

WhatsApp Group Join Now
Telegram Channel Join Now
Share This Article
Leave a comment